‘নজর ঘোরাতেই ভারতের সঙ্গে সংঘাত’, চিনে বহিষ্কৃত শি জিনপিংয়ের সমালোচক

কাই জিয়া নামে ওই প্রাক্তন অধ্যারক চিনের সেন্ট্রাল পার্টি স্কুলের প্রাক্তন অধ্যাপক ছিলেন৷ দেশের বদনাম করার অভিযোগে সরকারি ভাবে তাঁকে শাস্তি দেওয়া হয়েছে৷


প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের কড়া সমালোচনা করায় চিনা কমিউনিস্ট পার্টি থেকে বহিষ্কার করা হল একমহিলা সদস্যকে৷ ৬৮ বছর বয়সি ওই প্রাক্তন অধ্যাপক অভিযোগ করেছিলেন, দেশের অর্থনৈতিক এবংসামাজিক পরিস্থিতির থেকে নজর ঘোরাতেই ইচ্ছাকৃত ভাবে ভারত সহ অন্যান্য দেশগুলির সঙ্গে সম্পর্কখারাপ করছেন প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং৷ প্রতীকী ছবি/Photo- ReutersChaina

কাই জিয়া নামে ওই প্রাক্তন মহিলা অধ্যাপক চিনের সেন্ট্রাল পার্টি স্কুলের প্রাক্তন অধ্যাপক ছিলেন৷ দেশেরবদনাম করার অভিযোগে সরকারি ভাবে তাঁকে শাস্তি দেওয়া হয়েছে৷ যদিও শাস্তির আসল কারণপ্রেসিডেন্টের সমালোচনা বলেই মনে করা হচ্ছে৷ হংকংয়ের সংবাদপত্র ‘সাউথ চায়না মর্নিং পোস্ট’-এরপ্রতিবেদনে সোমবার এমনই দাবি করা হয়েছে৷PHOTO- Reuters

সেন্ট্রাল পার্টি স্কুলের ওয়েবসাইটেই তাঁকে বহিষ্কারের নোটিস দেওয়া হয়েছে৷ সেখানে লেখা হয়েছে, কাই জিয়ানামে ওই অধ্যাপকের বিরুদ্ধের দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের গুরুতর অভিযোগ প্রমাণিত হয়েছে৷ তাঁর করা মন্তব্যগুলি চরম অবমাননাকর বলেও অভিযোগ করা হয়েছে৷ এই মুহূর্তে বহিষ্কৃত পার্টি সদস্য মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রেনিরাপদেই রয়েছেন বলে নিজেই হংকংয়ের সংবাদপত্রকে জানিয়েছেন৷

গত জুন মাসে ‘দ্য গার্ডিয়ান’-কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি দাবি করেন, দেশে নিজে পায়ের তলার মাটিআরও শক্ত করতেই ইচ্ছেকৃত ভাবে ভারতের সঙ্গে সংঘাতে উস্কানি দিচ্ছেন প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং৷ শুধু তাইনয়, মানুষের আবেগ উস্কে দিতে একই কারণে চিনা প্রেসিডেন্ট লাগাতার আমেরিকা বিরোধী বিবৃতি দিয়েচলেছেন বলেও অভিযোগ করেন কাই জিয়া৷

শুধু তাই নয়, সংবিধান সংশোধন করে যেভাবে সর্বোচ্চ দু’ বার প্রেসিডেন্ট পদে থাকার বদলে আজীবনক্ষমতায় থাকার পথ পরিষ্কার করেছেন জিনপিং, তারও সমালোচনা করেন ওই প্রাক্তন অধ্যাপক৷ এরপাশাপাশি চিনে করোনা সংক্রমণে মৃতের সংখ্যা নিয়ে প্রকৃত তথ্য চেপে রাখা, গত ৭ জানুয়ারি প্রথমবারমারণ ভাইরাসের কথা জেনেও তা নিয়ন্ত্রণে উদ্যোগী না হওয়ার জন্যও জিনপিংয়ের কঠোর সমালোচনা করেন তিনি৷

সতর্ক করে কাই জিয়া বলেন, চিনের মানুষ যেহেতু সত্যিটা বলতে পারেন না তাই দেশ বিপর্যয়ের দিকেএগোচ্ছে৷ কাই জিয়া যে সেন্ট্রাল পার্টি স্কুলে কর্মরত ছিলেন, চিনের কমিউনিস্ট পার্টির আদর্শগত শিক্ষারজন্য তার বিশেষ গুরুত্ব রয়েছে৷ ২০১২ সালে ক্ষমতায় আসার আগে বর্তমান প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং এইস্কুলেরই প্রধান দায়িত্বে ছিলেন৷ PHOTO- FILE

Source

ওয়েব ডেস্ক

Average Rating

5 Star
0%
4 Star
0%
3 Star
0%
2 Star
0%
1 Star
0%

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Next Post

'নিজেকে এখন ভগবান মনে করছো!' ইমরানকে ধুয়ে দিলেন মিয়াঁদাদ

Mon Sep 21 , 2020
মিয়াঁদাদের মূল অভিযোগ, পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডে অদক্ষ লোকদের বসিয়ে রেখেছেন ইমরান৷ মিয়াঁদাদের ক্ষোভ ওয়াসিম খানকে পাক ক্রিকেট বোর্ডের সিইও পদে বসানোয়৷ Javed Miandad lashes out at Imran Khan alleging that he is ruining Pakistan cricket board. Source

আরও দেখুন